ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনসার সদস্যের মাইকিংয়ে আতঙ্কমুক্ত রোগী

গৌরীপুর নিউজ
প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার ৪ এপ্রিল, ২০১৯ /

‘আগুন লেগেছে। তাড়াতাড়ি আসেন।’ ময়মনসিংহ ফায়ার সার্ভিসে ফোন করে এভাবেই আকুতি জানান একজন রোগীর স্বজন। মুহুর্তেই ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ (মমেক) হাসপাতালে হাজির ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট। কিন্তু ঘটনাস্থলে পৌঁছে ফায়ার সার্ভিস দেখে, হাসপাতালে আগুন লাগার বিষয়টি ছিল নিছকই গুজব মাত্র। গুজব থেকেই রোগীর স্বজন ফোন করেছেন ব্যতিব্যস্ত হয়ে।

ততক্ষণে গোটা হাসপাতালে গোলমেলে অবস্থা। জীবন বাঁচাতে তড়িঘড়ি করে হাসপাতাল থেকে নেমে এসেছেন শত শত রোগী ও তাদের স্বজনেরা।

পরবর্তীতে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বিষয়টিকে গুজব হিসেবে প্রমাণ করার পর, মাইক হাতে নিয়ে নেমে পড়েন আনসার সদস্য সবুজ মিয়া। তিনি বলতে থাকেন, ‘হাসপাতালে কোন আগুন লাগে নাই। কে বা কারা গুজব ছড়িয়েছে, আপনারা আতঙ্কিত না হয়ে স্ব স্ব ওয়ার্ডে ফিরে যান।’ এমন ঘোষণায় আতঙ্ক কেটে যাওয়ায় রোগীরা নিজ ওয়ার্ডে ফিরে যান।

বুধবার (০৩ এপ্রিল) রাত ১১ টার দিকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ (মমেক) হাসপাতালে ঘটে এমন ঘটনা।

ময়মনসিংহ ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার রবিউল ইসলাম বলেন, ‘আমরা আগুনের খবর পেয়েছি এক রোগীর স্বজনের কাছ থেকে। উৎকন্ঠিত হয়ে তিনি আমাদের এই সংবাদ দেন। পরে আমাদের দু’টি টিম পুরো হাসপাতাল খুঁজেও আগুনের সন্ধান পায়নি। মূলত এখানে গুজব তৈরি করা হয়েছে’।

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ (মমেক) হাসপাতালের উপ-পরিচালক লক্ষী নারায়ণ জানান ‘নতুন ভবনের ৭ম তলায় এক রোগী মারা যাওয়ায় তার স্বজনদের কান্নায় রোগীদের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। ৬ তলার রোগীরা আগুন লেগেছে ভেবে চিৎকার শুরু করেন’।

তিনি জানান, আমরা আগুন না লাগার বিষয়টি মাইকে ঘোষণা করেছি। এতে করে রোগী ও তাদের স্বজনদের মাঝে স্বস্তির পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। তারা নিজ নিজ ওয়ার্ডে ফিরে গেছেন।

আপনার মতামত লিখুন :