শেরপুরে কবিরাজের বাড়িতে চিকিৎসা নিতে গিয়ে লাশ হলেন শিলা

জেলা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : বুধবার ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ /

শেরপুরের শ্রীবরদীতে কবিরাজের বাড়িতে চিকিৎসা নিতে আসা এক নারীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলার ভেলুয়া ইউনিয়নের চকবন্দি পশ্চিমপাড়া গ্রামের শাহজামাল ওরফে শাহ কবিরাজের (৬০) বাড়ি থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ওই কবিরাজকে আটক করেছে পুলিশ।

নিহত নারীর নাম রায়হানা জান্নাত শিলা (২৭)। তিনি জামালপুর সদর উপজেলার দড়িপাড়া গ্রামের ফরিদুর রহমানের মেয়ে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শাহজামাল ওরফে শাহ কবিরাজ তার নিজ বাড়িতে দীর্ঘদিন ধরে মানসিক রোগসহ বিভিন্ন রোগের চিকিৎসা করে আসছিলেন। এ খবর পেয়ে ফরিদুর রহমান তার মানসিক ভারসাম্যহীন মেয়ে শিলাকে গত চারদিন আগে চিকিৎসার জন্য ওই কবিরাজের বাড়ি রেখে যান। বুধবার ভোরে কবিরাজের বসতঘরে শিলার রহস্যজনকভাবে মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় এলাকাবাসী থানায় খবর দেয়। পরে শ্রীবরদী থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়। এছাড়া জিজ্ঞাসাবাদের জন্য কবিরাজ শাহজামালকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

শিলার বাবা ফরিদুর রহমান বলেন, আমার মেয়ে দীর্ঘদিন ধরে মানসিক ভারসাম্যহীন থাকায় বিভিন্ন জায়গায় চিকিৎসা করিয়েছি। গত চার দিন আগে চিকিৎসার জন্য শাহজামাল কবিরাজের বাড়িতে রেখে যাই। আজ ভোরে তার মৃত্যুর খবর পেয়ে কবিরাজের বাড়িতে গিয়ে শুনি, পুলিশ লাশ নিয়ে গেছে এবং কবিরাজকেও ধরে নিয়ে গেছে। পরে থানায় আসি।

এ বিষয়ে শ্রীবরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ রুহুল আমিন তালুকদার বলেন, শাহজামাল ওরফে শাহ কবিরাজের বাড়ি থেকে শিলার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ওই কবিরাজকে থানায় আনা হয়েছে। এ ব্যাপারে একটি ইউডি মামলা রেকর্ড করে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ জেলা হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :