শেরপুরে নদীতে গোসল করতে নেমে শিশু নিখোঁজ

জেলা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : সোমবার ৩ জুন, ২০১৯ /

শেরপুরে নালিতাবাড়ীর নন্নী উত্তরবন্দ এলাকায় চেল্লাখালি নদীর ঘাটে গোসল করতে নেমে এক শিশু নদীর পানিতে নিখোঁজ হয়েছে। শনিবার (১ জুন) দুপুরে উত্তরবন্দ গ্রামের ব্রিজপাড় ঘাট থেকে নিখোঁজ হয় সে। দমকল বিভাগের ডুবুরিরা নদীর বিভিন্ন স্থানে অনুসন্ধান চালালেও এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তার কোনো সন্ধান মেলেনি।

নিখোঁজ নুর ইসলাম (৮) নন্নী উত্তরবন্দ এলাকায় এলাকার আবুল হাশেমের ছেলে।

দমকল বিভাগ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নালিতাবাড়ী উপজেলার নন্নী উত্তরবন্দ গ্রামের মৃত শমসের আলীর ছেলে আবুল হাশেম সপরিবারে ঢাকায় বসবাস করেন। বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের এই চাকরিজীবী ঈদুল ফিতর উপলক্ষে তার দুই সন্তান মীম বেগম (১২) ও নুর ইসলামকে (৮) আগেভাগেই দাদার বাড়িতে পাঠিয়ে দেন। শনিবার দুপুর দেড়টার দিকে দাদাবাড়ি সংলগ্ন চেল্লাখালি নদীর ব্রিজপাড় ঘাটে দুই ভাই-বোন গোসল করতে যায়। এ সময় স্রোতেরর টানে দু’জনই তলিয়ে যেতে থাকলে সেখানে গোসল করতে থাকা অপর এক শিশু চিৎকার করতে থাকে। এতে শিশুদের চাচা আবু হারেজ দৌড়ে নদীতে নেমে মীমকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করতে পারলেও নুর ইসলামের কোনো খোঁজ পাননি। পরে দমকল বিভাগকে সংবাদ দেয়া হলে জামালপুর থেকে ডুবুরি দল ঘটনাস্থলে হাজির হয়ে রাত ৮টা পর্যন্ত নদীর সম্ভাব্য স্থানগুলোতে অনুসন্ধান চালায়। কিন্তু শিশু নুর ইসলামের কোনো সন্ধান না পেয়ে ঝড়-বৃষ্টির কারণে অভিযান পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়। রোববার দুপুর (২ জুন) পর্যন্ত ফের চেল্লাখালি নদীর বিভিন্ন স্থানে অনুসন্ধান চালানো হলেও তার কোনো সন্ধান মেলেনি।

দমকল বিভাগের ডুবুরি দলের দলনেতা আতাউর রহমান বলেন, ‌আমরা নুর ইসলামকে উদ্ধারের জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করলাম। কিন্তু নদীতে তীব্র স্রোত এবং দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া কারণে উদ্ধার তৎপরতা চালানো বিঘ্নিত হচ্ছে। তার ধারণা, লাশটি স্রোতে ভেসে ভাটির দিকে চলে যেতে পারে।

এ ব্যাপারে নন্নী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এ কে এম মাহবুবুর রহমান রিটন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, উদ্ধার হওয়া শিশু মীম সুস্থ রয়েছে। তবে অনেক খোঁজাখুঁজি করেও রোববার বিকেল পর্যন্ত শিশু নুর ইসলামের কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি।

আপনার মতামত লিখুন :