শেরপুরে মেয়েকে বাল্যবিয়ে দেয়ায় কারাগারে বাবা

জেলা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : শনিবার ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ /

শেরপুরের নকলা উপজেলার পশ্চিম নকলা গ্রামে সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীকে বাল্যবিয়ে দেয়ায় বাবাকে সাতদিনের কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

শনিবার দুপুরে দণ্ডপ্রাপ্ত বাবা রফিকুল ইসলামকে (৪০) জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে। তিনি ওই গ্রামের মৃত আবুল হোসেনের ছেলে। এর আগে শুক্রবার রাত ৮টার দিকে নকলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জাহিদুর রহমানের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে রফিকুল ইসলামকে কারাদণ্ড দেয়া হয়।

নকলা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসেন শাহ বলেন, অপ্রাপ্তবয়স্ক মেয়েকে বিয়ে দেয়ায় বাবা রফিকুল ইসলামকে কারাদণ্ড দেন ভ্রাম্যমাণ আাদলত।

ওসি বলেন, বাবা রফিকুল ইসলাম তার অপ্রাপ্তবয়স্ক মেয়েকে বিয়ে দিচ্ছেন এমন সংবাদের ভিত্তিতে শুক্রবার রাতে কনের বাড়িতে হাজির হন নকলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জাহিদুর রহমান। ইউএনওর আগমনের সংবাদ পেয়ে বরপক্ষ পালিয়ে গেলেও কনের বাবা রফিকুল ইসলামকে আটক করে উপজেলা পরিষদে আনা হয়। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে কনের বাবা রফিকুল ইসলামকে সাতদিনের কারাদণ্ড দেয়া হয়। শনিবার তাকে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :