সরকারি কর্মচারীকে মারধর ও চাঁদাবাজির মামলায় ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম অন্তর গ্রেপ্তার

প্রকাশিত: ১১:৫৯ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ৭, ২০২০

সরকারি এক কর্মচারীকে মারধর ও চাঁদাবাজির মামলায় ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার অচিন্তপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ভিপি শহিদুল ইসলাম অন্তরকে (৪১) গ্রেপ্তার করেছেন গৌরীপুর থানার পুলিশ। সোমবার (৬ জানুয়ারী) দিনগত রাত দেড়টার সময় ময়মনসিংহ জেলা শহরের নতুন বাজার মোড় এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গৌরীপুর থানার এসআই নজরুল ইসলাম গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, শহিদুল ইসলাম অন্তর গৌরীপুর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা অফিসের অফিস সহকারি আব্দুল করিমকে মারধরের ঘটনায় দায়েরকৃত মামলার আসামী। এছাড়াও তিনি (শহীদুল) উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার শফিকুল ইসলামের দায়েকৃত চাঁদাবাজির মামলার আসামী।

গৌরীপুরে কর্মরত তৃতীয় ও চতৃর্থ শ্রেণির কয়েকজন সরকারি কর্মচারী জানান, বৃহস্পতিবার (২ জানুয়ারী) বিকেলে অচিন্তপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম অন্তর পিআইও অফিসের অফিস সহকারি আব্দুল করিমকে বিনা দোষে নিজ অফিস কক্ষে লাঞ্চিত করেন। এরআগে গত বছর ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম অন্তর পিআইও অফিসের উপ-সহকারি প্রকৌশলী মাজহারুল ইসলাম ও উপজেলা যুব উন্নয়ন অফিসের অফিস সহায়ক আনোয়ার হোসেনকে বিনা কারনে শারীরিকভাবে লাঞ্চিত করার ঘটনায় ক্ষমা প্রার্থনার মাধ্যমে মুছলেখা দিয়ে ছাড় পান।

তারা আরো বলেন, গত বছর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার শফিকুল ইসলামের সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণ ও চাঁদা দাবির ঘটনায় শহিদুলের বিরুদ্ধে গৌরীপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। বর্তমানে ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলামের হুমকীর মুখে চরম আতংকের মধ্যে অফিস করতে হচ্ছে এ উপজেলার সরকারি কর্মচারীদের। তাই কর্মক্ষেত্রে নিরাপত্তা নিশ্চিতকরনে রবিবার (৫ জানুয়ারী) মানববন্ধন শেষে তারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে স্মারকলিপি পেশ করেছেন।

গৌরীপুর পিআইও অফিসের অফিস সহকারি আব্দুল করিমের দায়েরকৃত মামলা এজাহারে প্রকাশ, ঘটনারদিন ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম অফিস কক্ষে এসে আব্দুল করিমের কাছে সরকারি কম্বল চান। এসময় তিনি বলেন, সরকারি কম্বল দেয়ার কোন ক্ষমতা আমার নেই। এ কথা বলতেই, তাকে মারধর শুরু করেন ইউপি চেয়ারম্যান এবং একপর্যায়ে তাকে গলা চেপে শ্বাসরোধ করে হত্যার চেষ্টা করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) মোঃ মাসুদ রানা সাংবাদিকদের জানান, ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলামের বিরুদ্ধে প্রশাসনের পক্ষে বিধি মোতাবেক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।