রবিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০৭:০৪ পূর্বাহ্ন

শিরোনামঃ
ঈশ্বরগঞ্জে প্রতিপক্ষের বল্লমের আঘাতে বালুশ্রমিক নিহত কলমাকান্দায় ওষুধ ব্যবসায়ীর মরদেহ উদ্ধার পেঁয়াজের পর এবার রসুনের দাম ছুঁয়েছে আকাশ বাজারে আসছে ২০০ টাকার নোট রেডিও কিনতে স্ত্রীর গয়না বিক্রি, জাদুঘর গড়ার স্বপ্ন তার ত্রিশালে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে শ্রমিকের মৃত্যু হালুয়াঘাটে বাসচাপায় অটোরিকশার ৪ যাত্রী নিহত শেরপুরে ভাষা দিবসের অনুষ্ঠান দেখতে গিয়ে প্রাণ গেল দুই বন্ধুর গফরগাঁওয়ে চলন্ত ট্রেনে পাথর নিক্ষেপ, বাবা-মেয়ে আহত গফরগাঁওয়ে মায়ের সঙ্গে অভিমান করে শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা ময়মনসিংহে বিনম্র শ্রদ্ধায় পালিত হলো আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস গফরগাঁওয়ে ট্রেনের ইঞ্জিনে আগুন, চলাচল বিঘ্নিত প্রয়োজনে কিংবা অপ্রয়োজনে ক্রেতা হয়ে যান তাদের ৫২’র ভাষা আন্দোলনে ময়মনসিংহের গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাস গৌরীপুরে ৩ বছরেও অন্ধকারে কৃষক আফাজ খুনের রহস্য স্বামী বিদেশ, পরকীয়া প্রেমিকের হাতে প্রাণ গেল অন্তঃসত্তা গৃহবধুর ধোবাউড়ায় বিয়ের প্রলোভনে প্রেমিকাকে চারবন্ধু মিলে ধ’র্ষণ ভাষা শহীদদের প্রতি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা প্রস্তুত কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ধোবাউড়ায় অটোরিকশার ধাক্কায় স্কুলছাত্রী নিহত

স্ত্রীর কাটা মাথা হাতে নিয়ে থানায় যাওয়ার পথেই আটক স্বামী

স্ত্রীকে হত্যার পর কাটা মাথা হাতে নিয়ে থানায় যাওয়ার সময় ভারতের উত্তর প্রদেশের কাদিরপুর গ্রাম থেকে আখিলেশ রাওয়াত নামের এক ব্যক্তিকে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার সকালে ৩০ বছর বয়সী ওই ব্যক্তিকে পুলিশ আটক করে। পুলিশের বরাত দিয়ে এই খবর নিশ্চিত করেছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস।

এদিকে এই ঘটনায় ইতিমধ্যে থানায় যৌতুক আইনে মামলা করেছে আখিলেশের ভুক্তভোগী স্ত্রী রজনীর বাবা।

হিন্দুস্তান টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়, আখিলেশ রাওয়াত দুই বছর আগে রজনীকে বিয়ে করেন। গত বছর রজনী একটি কন্যা সন্তানের জন্ম দেন। কিন্তু জন্মের পরই সন্তানটি মারা যান। আর এর জন্য রজনীকে দুষতে থাকেন আখিলেশের পরিবার। এরপর থেকেই বাবার বাড়িতে চলে যান রজনী।

এই বিষয়ে পুলিশ কর্মকর্তা আরভিন্দ চতুর্ভেদি জানান, মেয়ে মারা যাওয়ার পর রজনী বাবার বাড়িতেই ছিলেন। চারদিন আগে আখিলেশ তাকে বাড়িতে আনেন।

পুলিশ জানায়, শনিবার সকালে রজনী এবং আখিলেশের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে সেটি সংঘর্ষে রুপ নেয়। পরে আখিলেশ ক্ষুব্ধ হয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে রজনীর মাথা কেটে ফেলেন। পরে জাহগিরাবাদ থানার উদ্দেশ্যে সেই কাটা মাথা নিয়ে এক কিলোমিটার হাটেন আখিলেশ। এই বিষয়ে পুলিশ কর্মকর্তা চতুর্ভেদি, একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। আমরা কেন এবং কিভাবে হত্যাকাণ্ড ঘটানো হলো সেটি খতিয়ে দেখছি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

কপিরাইট © গৌরীপুর নিউজ ডট কম ২০২০
Design & Developed BY A K Mahfuzur Rahman