৭ মাসের শিশুর লাশ মিলল পুকুরে, মা পলাতক

জেলা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : বুধবার ২ ডিসেম্বর, ২০২০ /

শেরপুর শহরের নওহাটা এলাকায় আরাফাত তাছিন নামে সাত মাসের এক শিশুকে পানিতে ফেলে হত্যার অভিযোগ উঠেছে মা নুরুন্নাহারের বিরুদ্ধে।

বুধবার (২ ডিসেম্বর) সকালে বাড়ির পাশে একটি পুকুর থেকে শিশুটির লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, নওহাটা এলাকার বাসিন্দা ও রড-সিমেন্ট ব্যবসায়ী আবু সামা ও নুরুন্নাহার দম্পতির চার ছেলে-মেয়ে। সাত মাস আগে সিজারিয়ান অপারেশনের মাধ্যমে আরাফাত তাসিন জন্ম নেয়। তাসিন জন্মের পর থেকেই মা নুরুন্নাহার অসুস্থ এবং অস্বাভাবিক আচরণ করতো। তাই শিশু তাহসিনকে দেখাশোনা করতো তার বড় বোন আফসানা লাবনী।

গত রাতে সবাই ঘুমিয়ে পড়লে কোনো এক সময় নুরুন্নাহার ছেলে আরাফাত তাহসিনকে নিয়ে হত্যা করে বা হত্যার উদ্দেশ্যে পুকুরে ফেলে পালিয়ে যায়। সকালে খোঁজাখুঁজির এক পর্যায়ে পুলিশ বাড়ির পাশে পুকুর থেকে ওই শিশুর লাশ উদ্ধার করে।

তাসিনের বোন লাবনী জানায়, আরাফাত তাসিন জন্মের পর থেকে মায়ের মাথায় সমস্যা হয়েছে। মা পাগলের মতো আচরণ করতো। ঘুমাতো না, ঠিকমতো খেত না। গতকাল রাতে ঘুমাতে গিয়ে হঠাৎ করেই মায়ের কোনো খোঁজ নেই।’

শেরপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, খবর পেয়ে বাড়ির পাশের পুকুর থেকে শিশুর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে মা পলাতক। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থার প্রস্তুতি চলছে।

আপনার মতামত লিখুন :